How to Earn Money From Google Free In Bengali

How To Earn Money From Google Free In Bengali - If you are looking for some income besides your Study / Jobs, then there are lots of ways through Online nowadays. In this article, I am sharing with you, one of these Popular way, how to earn money from google without investment. 

Free Passive Income From  Google easily. You can get complete information about Online earnings through Google in Bengali. So please read this article carefully follow my Blog regularly. 

আপনি নিশ্চয়ই গুগলের নাম শুনেছেন। বলার অপেক্ষা রাখে না, আজকের দিনে বিশ্বের অন্যতম একটি বড় কোম্পানি হলো গুগল। কিন্তু এই গুগল থেকে আপনি কিভাবে ইনকাম করবেন? আপনি তো গুগলে চাকরি করেন না!

এই ইন্টারনেটের যুগে এরকম ধারণাটা সম্পূর্ণ ভুল। আপনি আপনার ঘরে বসেই গুগল থেকে ইনকাম করতে পারেন। সারা বিশ্বজুড়ে লাখ লাখ মানুষ ঘরে বসেই অনলাইনে গুগল থেকে ইনকাম করে চলেছে।

    বাচ্চা থেকে শুরু করে বয়স্করা সবাই গুগোল কে ব্যবহার করে অর্থ উপার্জনের পথ তৈরি করেছে। আপনি গ্রামে থাকেন, না শহরে থাকেন সেটা নির্ভর করেনা শুধুমাত্র আপনার কাছে স্মার্টফোন অথবা ল্যাপটপ এবং সাথে ইন্টারনেট থাকলেই আপনি ঘরে বসেই গুগল থেকে ইনকাম করতে পারবেন। তাই আজকের এই পোস্টে সেই বিষয়ে আলোচনা করব। 

    ১.গুগল থেকে টাকা ইনকাম করবেন কিভাবে ? (How To Earn Money From Google Free)

    গুগল থেকে ফ্রিতে ইনকাম এর সবথেকে জনপ্রিয় এবং হান্ডেট পার্সেন্ট সঠিক দুটি মাধ্যম হলো - 

    ১. ব্লগিং ( Blogging)

    ২. ইউটিউব ( YouTube)

    ব্লগিং কি , কিভাবে ইনকাম হয় ? ( What Is Blogging)

    আপনি যদি লিখতে পছন্দ করেন তাহলে আপনি আপনার নলেজ টেক্সট আকারে শেয়ার করতে পারেন সারা বিশ্বের এর কাছে গুগলের মাধ্যমে। এবং আপনার এই লেখায় Google AdSense এর মাধ্যমে অ্যাডভার্টাইজমেন্ট দেখাবে এবং সেটা থেকে আপনার ইনকাম তৈরি হবে।

    এর জন্য কি করতে হবে?

    এর জন্য আপনি আপনার একটা ব্লগ সাইট তৈরি করতে পারেন সেটি আপনি ফ্রিতে করতে পারবেন এবং তার সাথে আপনাকে Google AdSense Account তৈরি করতে হবে। 

    কিভাবে আপনি ব্লগ সাইট শুরু করবেন?

    ব্লগ সাইট বানানো খুবই সহজ এবং আপনি একটি সম্পূর্ণ ফ্রিতে বানাতে পারবেন শুধুমাত্র আপনার কাছে আপনার জিমেইল আইডি থাকতে হবে-

    • প্রথমে আপনি গুগলে গিয়ে টাইপ করবেন blogger.com
    • আপনার জিমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করবেন।
    • 'Create A New Blog' এ ক্লিক করবেন।
    • আপনার ব্লগের নাম ও অ্যাড্রেস দেবেন।
    • Blogger Theme সিলেক্ট করবেন।

    আপনার ব্লগার সাইট তৈরী যাবে। আপনি যদি অল্প ইনভেস্ট ও করতে চান, তাহলে আপনার ব্লগের Topic অনুসারে Domain Name ও কিনতে পারেন Goddady থেকে। এবং ব্লগের সাথে যুক্ত করে নিতে পারবেন। তাহলে আপনার ব্লগ অনেকটাই প্রসেশনাল লাগবে। 

    আপনার ব্লগ সেট হওয়ার পর, আপনাকে নিয়মিত মৌলিক পোস্ট লিখতে হবে ( যে অন্যসব ওয়েবসাইটের কপি-পেস্ট না হয়)। অন্তত এক মাস পর আপনি Google AdSense এর জন্যে Apply করবেন। আপনার ব্লগ সাইট অ্যাপ্রুভ হওয়ার পর, Google Adsense এর মাধ্যমে ব্লগে বিজ্ঞপন দেখানো শুরু করবে গুগল। 

    মনে রাখবেন, ইনকামের জন্যে আপনার ব্লগে ভিজিটর থাকা প্রয়োজন। এবং এই ভিজিটর আনার দায়িত্ব আপনার। তার জন্যে আপনি গুগল সার্চেবল Keyword এর উপর আর্টিকেল লিখতে পারেন অথবা, আপনি ফেসবুক/হোয়াটসঅ্যাপ কে ভিজিটর আনার মাধ্যম হিসেবে। ব্যবহার করতে পারেন। ।

    ২. ইউটিউব ( YouTube)

    বর্তমান সময়ে গুগল থেকে ইনকাম এর একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হল ইউটিউব। যারা নতুন এই অনলাইন ফিল্ডে তাদেরকে আমি এরকম করবো আপনি ইউটিউব থেকেই শুরু করতে পারেন। আপনার মধ্যে যদি কোন ট্যালেন্ট থাকে অথবা আপনি যেটি পছন্দ করেন সেই বিষয়ে যদি আপনি ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করেন তাহলে আপনার মাসে একটি মোটা ইনকাম আসতে পারে ইউটিউব থেকে। এবং এই ইউটিউব থেকে ইনকাম আপনি সম্পূর্ণ ফ্রিতে করতে পারবেন। শুধু ইন্টারনেট স্মার্টফোন থাকলেই আপনি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। 

    কিভাবে ইউটিউব এ চ্যানেল তৈরি করবেন ? (How To Create YouTube Channel Free)

    ইউটিউব এ চ্যানেল তৈরি করা খুবই সহজ একটি ব্যাপার। 

    • আপনার ফোনে বা ডেক্সটপে আপনি youtube.com লিখে সেটি ওপেন করবেন।
    • আপনার জিমেইল পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনি সাইন ইন করবেন।
    • তারপর আপনাকে আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভেরিফিকেশন করতে হবে।
    • আপনার চ্যানেলের লোগো লাগাবেন।
    • এবং অবশ্যই আপনার চ্যানেল ব্যানার সেট করবেন।

    এই কয়টি স্টেপ সম্পন্ন করলেই একটি প্রফেশনাল চ্যানেল আপনি সম্পূর্ণ ফ্রিতে তৈরি করতে পারবেন।

    ইউটিউব থেকে ইনকাম কিভাবে হবে?

    এর থেকে ইনকাম এর জন্য আপনাকে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করে যেতে হবে। মনে রাখবেন আপনি একটি বিষয় সিলেক্ট করবেন আপনার চ্যানেলের জন্য। এবং শুধুমাত্র সেই বিষয়ে আপনি ভিডিও আপলোড করে যাবেন। যেমন - গান, নাচ, কবিতা বলা, সিনেমা রিভিউ, সিনেমার নিউজ, খেলার নিউজ, টেকনোলজি নিউজ, এডুকেশন, ড্রয়িং, আর্ট, ইত্যাদি আরো অনেক বিষয় আছে। আপনার পছন্দের বিষয় নিয়ে আপনি নিয়মিত ভিডিও তৈরি করবেন। এবং এখানে মনে রাখবেন যে ভিডিও আপনি তৈরি করবেন তার মধ্যে কোন কপিরাইটেড ইমেজ বা ভিডিও ক্লিপস বা মিউজিক যেন না থাকে। 

    আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হওয়ার পর আপনি ইউটিউব এর পার্টনার প্রোগ্রাম এডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করতে পারেন ইউটিউব স্টুডিও থেকেই। ইউটিউব আপনার চ্যানেলটিকে রিভিউ করবে এবং তারপর আপনাকে অ্যাডভার্টাইজমেন্ট অ্যাপ্রুভ দিয়ে দেবে। এবং আপনার ভিডিও তে বিজ্ঞপন দেখাবে গুগল। যেটি থেকে আপনার ইনকাম হতে থাকবে। 

    আপনি ব্লগিং করুন বা, ইউটিউব আপনার ইনকাম Google AdSense অ্যাকাউন্টে জমা হবে। এবং ১০০ ডলার পূর্ন হলেই, সেটি আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি চলে আসবে। এবার চলুন জেনে নিন, কিভাবে অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট তৈরী হয়-

    কিভাবে অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট তৈরী করবেন? (How To Create AdSense Account ?)

    যারা শুধু ব্লগ সাইট তৈরী করবেন, তারা এই ভাবে অ্যাকাউন্ট তৈরী করুন ( ইউটিউবের জন্যে, আপনার ১০০০ সাবস্ক্রাইব ও ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম কমপ্লিট হওয়ার পর ই আপনি YouTube Studio এ থেকে আবেদন করতে হবে)  - 

    1. Google AdSense এর হোমপেজে যেতে হবে প্রথমে - www.google.com/adsense
    2. 'Get Start' বাটনে ক্লিক করবেন।
    3. আপনার Gmail ও Password দিয়ে ক্লিক করবেন। 
    4. এবার স্টেপ বাই স্টেপ যে ডিটেলস ফর্ম পূরন করুন আপনার Blogger Site এর অ্যাডড্রেস দিয়ে।
    5. আপনার সঠিক নাম ও ঠিকানা দিন ( যে নাম আপনার PAN Card এ আছে)

    সাইনআপ প্রসেস শেষ হলে, আপনি একটা 'Code' পাবেন। কোড টি নিয়ে আপনার ব্লগার সাইট এর থিমের Header সেকসনে Paste করুন। এবং থিম সেভ করুন।

    কয়েকদিনের মধ্যে Google AdSense ইমেলের মাধ্যমে জানিয়ে দেবে আপনার ব্লগ, বিজ্ঞপন দেখানোর জন্যর অ্যাপ্রুভ হল কিনা। 

    কিভাবে আপনার ব্লগে অ্যাড দেখাবেন? ( How to Place Ads On Your Blog)  

    আপনার, Blog অ্যপ্রুভ হয়ে গেলে, আপনি Google AdSense এর অ্যাকাউন্টে লগইন করবেন এবং Ads সেকসনে গিয়ে একটি কোড পাবেন 'Google Auto Ads' সেই কোড টি কপি করে, আপনার Blogger থিমের Header সেকসনে পেস্ট করবেন। 

    পরিশেষে বলি, সঠিক পথে রাতারাতি টাকা ইনকামের কোনো শর্টকাট হয় না। আপনার পরিশ্রম, ধৈর্য, আর ধারাবাহিক ভাবে কিছু করে যাওয়া, আপনাকে সফলতার পথে এগিয়ে নিয়ে যায়। 

     'আয়ের দিশা' বিভাগের প্রথম পোস্ট এটি। আরও অনেক সঠিক পথের ভাল কিছু আসছে এই ব্লগে। ভালো লাগলে নীচের হোয়াটসঅ্যাপ বাটনে ক্লিক করে পোস্টটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। 

    Comments

    Post a Comment